জল ও জঙ্গলের কাব্যে একদিন,পূবাইল-গাজীপুর

পিকনিক! পিকনিক!! পিকনিক!!! হঠাৎ করেই মুনির স্যার ঘোষণা দিলেন সামনেই পিকনিক। কয়েকদিন পর জানা গেল সেটি হচ্ছে পূবাইল এর “জল ও জঙ্গলের কাব্য” নামক কোন এক স্থানে। একটা পিকনিকের জন্য অনেকদিনের অপেক্ষা। অবশেষে অনেক মজার একটা পিকনিক করলাম।

ভাদুন এলাকার ভিতর দিয়ে যখন ডুকছিলাম হঠাৎ মনটা গেয়ে উঠল “গ্রাম ছাড়া ঐ রাঙা মাটির পথ”। ভাদুনে আমি আগেও কয়েকবার গিয়েছি। গ্রামটা অনেক সুন্দর। পূবাইল এরিয়াতে যত শুটিং হয় তার প্রায় বেশিরভাগই হয় এ গ্রামে। “জল ও জঙ্গলের কাব্য” স্থানটা মোটামুটি একটু ভিতরে। যেতে যেতে আমরা রাস্তার দুপাশের গ্রামের সৌন্দর্য উপভোগ করছিলাম। যে কখনো গ্রাম দেখেনি তাঁর কাছে এটা স্বর্গের একটা ছায়া বলে মনে হবে। কর্মক্লান্তি থেকে একটু বিশ্রাম নিতে জায়গাটা অনেক চমৎকার।

বিস্তারিত

বালিয়াটি জমিদার বাড়ি, মানিকগঞ্জ

বাংলাদেশে খ্রিস্টীয় উনিশ শতকের একটি অপূর্ব নিদর্শন এই বালিয়াটি প্রাসাদ। বালিয়াটির জমিদার গোবিন্দ রাম সাহা ছিলেন এর প্রতিষ্ঠাতা। তিনি ছিলেন খ্রিস্টীয় আঠারো শতকের মাঝামাঝি সময় পর্বের একজন বড় মাপের লবণ ব্যবসায়ী। ৫.৮৮ একর জমির উপর বিস্তৃত এই নিদর্শনটি বিভিন্ন পরিমাপ ও আকৃতির দু’শতাধিক কোঠা ধারণ করেছে। স্থাপনাসমূহের আকর্ষণীয় দিক হল সারিবদ্ধ বিশাল আকৃতির করিনথিয়ান থাম, লোহার বীম, ঢালাই লোহার পেচাঁনো সিঁড়ি, জানালায় রঙ্গিন কাঁচ, কক্ষের অভ্যন্তরে বিশাল আকৃতির বেলজিয়াম আয়না, কারুকার্যখচিত দেয়াল ও মেঝে ঝাড়বাতি ইত্যাদি।

কয়েকদিন আগে ঘুরতে গিয়েছিলাম এখানে। চমৎকার একটি জায়গা। সেই ভ্রমণ অভিজ্ঞতা, তথ্য ও কয়েক ডজন ছবি নিয়ে এ ব্লগ।

বিস্তারিত